হিল জুতার ব্যবহারকারী ছিলেন মূলত পুরুষেরাই!

১। হিল জুতার আদি ব্যবহারকারী ছিলেন মূলত পুরুষেরাই! নারীদের জগতে হিল জুতার প্রবেশের ইতিহাস মাত্র পাঁচশ বছরের কাছাকাছি। অন্যদিকে পুরুষদের জগতে হিল জুতা রাজত্ব করে বেড়িয়েছে কয়েক হাজার বছর ধরে!

Heel
Heel

২। উঁচু হিলের জুতা ব্যবহারের প্রথম নজির খুঁজে পাওয়া যায় প্রাচীন গ্রীসে। গ্রীসের মতো উঁচু হিল ব্যবহারের নজির খুঁজে পাওয়া যায় প্রাচীন মিশরেও।

 

৩। নারীদের মাঝে নিজেকে জনপ্রিয় করতে অনেক সময় লেগেছিলো উঁচু হিলের জুতা সম্প্রদায়ের। এর প্রথম নজির খুঁজে পাওয়া যায় পনের শতকের ভেনিসে। প্রায় চব্বিশ ইঞ্চি উঁচু ও কিছুটা বাঁকানো সেই জুতাগুলোকে বলা হতো চপিন (Chopine)। এগুলোর প্ল্যাটফর্ম ছিলো কিছুটা সংকীর্ণ।

 

৪।  কাদার হাত থেকে সুন্দর জুতাগুলোকে রক্ষা করতেই এ কৌশলের দ্বারস্থ হতেন তৎকালীন নারীরা।

 

৫। পনের শতকে ভেনিসে উঁচু হিলের জুতা জনপ্রিয় করতে মূল ভূমিকা রেখেছিলো সেখানকার প্রস্টিটিউটেরা। খদ্দের আকৃষ্ট করতে তারা তাদের প্রতিদ্বন্দীদের চেয়ে উঁচু জুতা পরতে চাইতো যাতে করে সহজেই লোকে তাকে দেখতে পেয়ে এগিয়ে আসে তার দিকে!

 

৬। সর্বশেষ ১৭৪০ সালের কাছাকাছি সময়েই পুরুষদের হিল জুতা পরতে দেখা গেছে!

 

৭। মিশরে উচু হিলের জুতার প্রচলন করেন কসাইরা। মূলত জবাই করা পশুর রক্ত বা কোনো রকম নোংরা পায়ে না লাগানোর জন্যই এ ধরনের জুতা পরতেন তারা।

high-hill
high-hill

৮। আগেকার জুতাগুলোতে সোল (Sole) আর হিল দুটোই থাকতো বেশ উঁচু। সময়ের সাথে সাথে এ ফ্যাশনে পরিবর্তন আসতে শুরু করে। নিচু সোল ও উঁচু হিলের রাজকীয় আগমন ঘটে ১৫৩৩ সালে, রাজপরিবারের এক বিয়েতে। সেই বছর ১৪ বছর বয়সী ক্যাথেরিন দ্য মেদিচি বিয়ে করেছিলেন অর্লিন্সের ডিউককে। চপিনের পরিবর্তে তিনি বেছে নিয়েছিলেন নিচু সোল ও বেশ উঁচু হিলের একজোড়া জুতা।

 

৯। ১৫৯৯ সালে প্রথম আব্বাসের কূটনীতিক দলের কাছ থেকে দেখা উঁচু হিলের জুতা যেন এক নবজাগরণের সৃষ্টি করেছিলো তৎকালীন অভিজাত শ্রেণীর পুরুষ সমাজে।

 

১০। ভিক্টোরিয়ান যুগে এসে এ চিত্র আবার পাল্টাতে শুরু করে। নতুন সেলাই প্রযুক্তির উদ্ভাবনের ফলে তখনকার হিলগুলোর উচ্চতা নেমে এসেছিলো মাত্র কয়েক ইঞ্চিতে।

 

১১। ইউরোপে উচু হিলের জুতা পরার মাধ্যমে অভিজাতরা সমাজের আর সাধারণ লোকেদের কাছ থেকে নিজেদেরকে আলাদা দেখাতে চেয়েছিল।

 

১২। সপ্তদশ শতকের ইউরোপের কর্দমাক্ত রাস্তায় হাই হিলের জুতার কোন প্রযোজনীয়তা ছিল না।

 

১৩। তারপরও নিজেদের আভিজাত্য বোঝানোর জন্য সমাজের উচু শ্রেণির লোকেরা অবাস্তব, আরামদায়ক নয় এমন এবং ব্যয়বহুল সব পোশাক আশাক পরিধান করা শুরু করল। তারা এসব কিছু করতে পারতো যেহেতু তাদের মাঠে কাজ করতে হত না বা কাদা মাখা পথে বেশি দূর যেতে হত না।

high_heels
high_heels

১৪। ইংল্যান্ডের রাজা দ্বিতীয় চার্লস ১৬৬১ সালে তার রাজ্যাভিষেকের সময় টকটকে লাল রংয়ের হিলের ফ্রেঞ্চ নকশার এক জোড়া জুতা পরেছিলেন। যদিও চার্লস লম্বায় ছিলেন ৬ ফুটেরও বেশি।

 

১৫। জুতার বিশাল সংগ্রহের জন্য খ্যাতি ছিল ফ্রান্সের চর্তুদশ লুইসের। রাজা হিসেবে মহান হলেও তার উচ্চতা ছিল মাত্র ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি। মর্যাদা ধরে রাখতে তিনি ৪ ইঞ্চি উচ্চতার হিল জুতা পরা শুরু করেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *